1. admin@dainikprothomprohor.com : admin : News Desk
কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শিক্ষিকার ঘরে আগুন - দৈনিক প্রথম প্রহর
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০১:১৯ অপরাহ্ন

কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শিক্ষিকার ঘরে আগুন

  • প্রকাশিত: সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নাছরিন (৩১) নামে এক স্কুল শিক্ষিকাকে চিরকুট লিখে তার ভাড়া ঘরে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাতে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার চর নওয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী নাছরিন আলফাডাঙ্গা পৌরসভার চর নওয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

ওই ঘটনায় রোববার রাতে ওই শিক্ষিকা বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। নাছরিন কাশিয়ানী উপজেলার শিবগাতী গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী। তিন সন্তান নিয়ে আলফাডাঙ্গা পৌরসভার চর নওয়াপাড়া গ্রামে মাহামুদুল হাচানের বাড়িতে তিনি ভাড়া থাকতেন।

জানা যায়, অজ্ঞাত ব্যক্তিরা পাঁচটি ফোন নম্বর থেকে প্রায় সময় ফোন দিয়ে প্রেম নিবেদনসহ কু-প্রস্তাব দিতেন। পরে প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ভয়ভীতি দেখান তারা। গত ২ ফেব্রুয়ারি কোনো এক সময় বাড়ির বাউন্ডারিতে চিরকুট লিখে রাখেন। সেখানে অশ্লীল ভাষা ব্যবহারসহ ঘরে আগুন দেওয়ার কথা লেখা ছিল।

বিদ্যালয় দুইদিন বন্ধ থাকায় নাছরিন গত ১৭ তারিখ বিকেলে স্বামীর বাড়ি চলে যান। ১৯ তারিখ বিকেলে বাসায় ফিরে দেখতে পান বাড়ির মূল ফটক ও ঘরের তালা ভাঙা। পরে ঘরে ঢুকে দেখতে পান তাদের ব্যবহৃত সমস্ত পোশাক, প্রয়োজনীয় মালামাল ও খাদ্য পণ্যসহ সব জিনিসপত্র আগুন দিয়ে পোড়ানো।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা আফিয়া পারভিন জানান, চিরকুটের ঘটনায় নাছরিনকে থানায় সাধারণ ডায়রি করতে বলেছিলাম তবে গ্রামের মাতুব্বররা বলেছিলেন বিষয়টি তারা দেখবেন।

বাড়ির মালিক মাহামুদুল হাচান বলেন, স্কুল শিক্ষিকা তিন সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকেন। দেওয়ালে চিরকুট লেখার বিষয়টি নিয়ে সেলিম শেখ নামে এক স্থানীয় মাতুব্বর বলেছিলেন তিনি বিষয়টি দেখবেন। যার কারণে আমি আইনের আশ্রয় নেইনি।

এ বিষয় নিয়ে জানতে সেলিম শেখকে একাধিকবার ফোন করলে তিনি কোনো সাড়া দেননি।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আজিজুর রহমান তালুকদার বলেন, খবর পেয়ে আমি নিজে ঘটনাস্থলে গিয়েছি, যারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের বিচার দাবি করছি।

আলফাডাঙ্গা থানার ওসি মো.আবু তাহের জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
কপিরাইট © ২০২২ দৈনিক প্রথম প্রহর. কম
ডিজাইন ও ডেভেলপ : ডিজিটাল এয়ার